Tuesday , December 6 2016
Home / রুপ চর্চা

রুপ চর্চা

ঘরোয়া পদ্ধতিতে ত্বকের যেভাবে যত্ন নিতে পারেন তেমন কিছু পদ্ধতি

lemons

ত্বকের যত্ন সময়সাপেক্ষ হলেও ঘরোয়া পদ্ধতিতে ত্বকের যত্ন নেওয়া শ্রেয়। প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহারে ত্বক মসৃণ ও নরম থাকে। ত্বকের যেকোনো সৌন্দর্য সমস্যা প্রাকৃতিক উপায়ে নিরাময় করা সম্ভব। নিচে কিছু পদ্ধতি উল্লেখ করা হলঃ – কলা পেস্ট করে লাগালে শুষ্ক ত্বকে প্রাণবন্ত ভাব ফিরে আসবে। মধুও শুষ্ক ত্বকের জন্য খুব উপকারী। টমেটোর রসের সঙ্গে একটু মধু পেস্ট করে নিন। অনেক ভালো ফল পাবেন। – তৈলাক্ত ত্বকে শশার রস চমৎকারভাবে কাজ করবে। শশার রসের সাথে মুলতানি মাটি ও চন্দনের গুঁড়া মিশিয়ে লাগান। এতে যেমন তেলতেলে ভাব কমবে সাথে ত্বকের উজ্জ্বলতাও ফিরে আসবে। পেঁপে পেস্ট করে ১০-১৫ মিনিটের জন্য মুখে দিয়ে রাখুন। ত্বকের পোড়া ভাব দূর করবে। গাজর পেস্ট করে ১০ মিনিটের জন্য লাগালে উপকার পাবেন। চন্দন পেস্ট করে লাগান। শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। ধুয়ে নিন। – সাধারণ থেকে তৈলাক্ত ত্বকের জন্য দুধের ক্রিম অথবা ত্বক দই-এর সঙ্গে কয়েক ফোঁটা গোলাপের পানি মেশান। মুখ ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে মাস্কটি লাগিয়ে ১৫ মিনিট পর ...

Read More »

ক্লান্ত মুখের জন্যে মেকআপ টিপস

how to hide makeup

কাজ শেষে ক্লান্তি চেহারায় অসুস্থতার ছাপ আনে। চোখ বসে যায়, গায়ের রং কালো হয়ে যায়। এমন সময় কোন অনুষ্ঠান থাকলে পড়তে হয় বিপদে! মুখের এই নির্জীব ত্বক লুকানোর জন্য বেশি করে ফাউন্ডেশন লাগানোটাই সমস্যার সমাধান নয়। বরং এই সময় নিজেকে সুন্দর রাখার সম্ভব সহজ কিছু টিপস মেনে। ১। হালকা ফাউন্ডেশন ভারী ফাউন্ডেশনের পরিবর্তে হালকা কোন ফাউন্ডেশন লাগান। এতে ত্বক উজ্জ্বল দেখাবে। লিকুইয়েড ফাউন্ডেশনের পরিবর্তে বিবি ক্রিম ব্যবহার করতে পারেন। বিবি ক্রিম হালকা ত্বকের সাথে সহজে মিশে যায়। এটি ত্বকের যেকোন দাগও ঢেকে দিয়ে থাকে। ২। নাকে কনসিলারের ব্যবহার যদি আপনার ঠান্ডা বা সর্দি থাকে তাহলে নাকটা লাল হয়ে থাকে। নাকের ডগা লালচে হয়ে যায়। এই সমস্যার সমাধানের জন্য নাকে পেট্রোলিয়াম জেলি লাগান। তার উপরে হালকা করেকনসিলার লাগান যাতে নাকের লাল ঢেকে যাবে। ৩। চোখের ফোলাভাব দূর করুন ভাইরাল জ্বরের ফলে আপনার চোখের নিচে ফুলে যেতেপারে, ডার্ক সার্কেল পড়ে যেতে পারে। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য চোখের নিচে ঠান্ডা টি ...

Read More »

আবেশী শীতে নিজের যত্ন

maxresdefault-4

সারাদিন কড়া রোদ আর সন্ধ্যার পর থেকে ঠাণ্ডা, শীত এসেই গেল। আবহাওয়ার সাথে সাথে পরিবর্তন হচ্ছে ত্বকেরও। এখন থেকেই ত্বকের খুঁটিনাটি যত্ন নিলে সারা শীতে থাকতে পারবেন সতেজ। শীতে ত্বক স্পর্শকাতর হয়ে যায়। গরমের জন্য যেসব পণ্য এত দিন ব্যবহার করা হয়েছে, সেগুলো বদলে নিতে হবে ধীরে ধীরে এখন থেকেই। ত্বকের যত্নঃ শীতকালে ত্বক কখনো একটু অদ্ভুত আচরণ করে, ত্বকে মিশ্র একটা ভাব দেখা দিতে পারে। মুখের টি জোন অর্থাৎ নাক-কপালের অংশ ছাড়া বাকি জায়গা শুষ্ক হয়ে যেতে পারে। তাই ত্বকের ধরন বুঝে নিতে হবে বাড়তি যত্ন। যদি ত্বকে মিশ্র ভাব দেখা দেয় তবে সাধারণত যে ফেস ওয়াশ গরমকালে ব্যবহার করেছেন সেটাই রাখুন। তবে তা শুধু টি-জোনটুকুর জন্যই। বাকি শুষ্ক জায়গায় সাধারণ ফেস ওয়াশ বা ফোমিং ক্লিনজার দিয়ে ধোবেন। একটু বেশি শুষ্কতা দেখা দিলেক্রিম ক্লিনজার, ক্লিনজিং মিল্ক অথবা গ্লিসারিন বার ব্যবহার করুন। প্রতিদিন বাইরে বের হওয়ার আগে দেখে নিন আপনার সঙ্গে ক্লিনজিং ওয়াইপস বা ওয়েট টিস্যু আছে কি না। প্রয়োজনে দরকার মত মুখ মুছে নেবেন। এ ...

Read More »

ভ্রু আর্ট

maxresdefault-2

ঘন ভ্রু হলে থ্রেডিং করে পছন্দমতো আকার দেওয়া যায়। কৃত্রিম পাপড়ি ও মাসকারার মাধ্যমে ভ্রু ও পাপড়ি ঘন দেখানো যায়। খারাপ মানের প্রসাধনী ব্যবহার এবং প্রসাধনী ব্যবহারের পর ঠিকমতো পরিষ্কার না করলে ভ্রু পরে যেতে পারে। তাছাড়া অভ্যন্তরীণ সুস্থতা না থাকলে বাহ্যিক রূপ কখনোই সুন্দরভাবে ফুটে উঠবে না। রূপচর্চার মাধ্যমে এ ধরনের সমস্যা সমাধানের আগে কোনো চিকিৎসকের কাছ থেকে পরামর্শ নেওয়া উচিত। রূপবিশেষজ্ঞরা জানান, ক্যাস্টর ওয়েল বা তিলের তেল তুলায় ভিজিয়ে প্রতিদিন রাতে ঘুমানোর আগে ভ্রুতে আলতো করে কিছুক্ষণ ঘষলেও প্রাকৃতিকভাবে ভ্রু ঘন হয়ে ওঠে। তবে এটি সময়সাপেক্ষ ব্যাপার, এ জন্য ধৈর্য ধরতে হবে। ভ্রু ও পাপড়ি ঘন দেখাতে যা যা করতে পারেন * মেকআপের সময় ভ্রু ঘন দেখানোর জন্য কালো বা বাদামি আইব্রও পেনসিল, ব্ল্যাক ডাস্ট পাউডার ইত্যাদির সাহায্যে ভ্রু এঁকে মোটা ও ঘন দেখানো যায়। * ভ্রু আঁকার ক্ষেত্রে সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। ভ্রুর শুরুতে হালকা করে, মাঝের অংশ একটু গাঢ় এবং একদম শেষের ধারটা চিকন করে আনতে ...

Read More »

কনসিলার বানানোর রেসিপি

maxresdefault

কনসিলার দিয়ে মূলত ত্বকের দাগ, খুঁত ও ডার্ক সার্কেল ঢেকে দেওয়া যায়। ব্রণ বা ব্রণের দাগ নিয়ে চিন্তা করছেন, সেটিও ঢেকে দিবে কনসিলার। ফাউন্ডেশন ব্যবহার না করে শুধু কনসিলার ব্যবহার করে মেকআপের বেইজের কাজটি করে নিতে পারেন। নো মেকআপ বা ন্যাচারাল মেকআপ বলে একটি কথা প্রচলিত আছে। এই ন্যাচারাল মেকআপের কাজটি করতে সাহায্য করে কনসিলার। বাজারে নানা ধরণের কনসিলার কিনতে পাওয়া যায়। নিজের ত্বকের রঙ থেকে এক দুই শেড হালকা রঙের কনসিলার ব্যবহার করা উচিত। কিন্তু ঘরে বসে সহজেই তৈরি করে নিতে পারেন কনসিলার। কনসিলার তৈরির উপায় জেনে নিই। যা যা লাগবে: ময়েশ্চারাইজার লোশন যেকোনো লিকুইড ফাউন্ডেশন ফেইসপাউডার চামচ কনটেইনার যেভাবে তৈরি করবেন: ১। একটি খালি পাত্রে অল্প পরিমাণে ফেইসপাউডার নিন। ২। এর সাথে ময়েশ্চারাইজার লোশন মিশিয়ে নিন। লোশন কনসিলারকে ঘন করবে। ৩। এরপর এতে অল্প পরিমাণ লিকুইড ফাউন্ডেশন মিশিয়ে নিন। ৪। সবগুলো উপাদান ভাল করে মিশিয়ে নিন। ৫। মিশানো হয়ে গেলে তা কনটেইনারে নিয়ে নিন। আপনি চাইলে লিকুইড ফাউন্ডেশন ...

Read More »

এই শীতে হাত–পায়ের রুক্ষতা।

close-ups of beautiful female legs and hands - beauty treatment

এই শীতে শুরু হয়ে যাবে হাত-পায়ের ত্বকের রুক্ষতা। আবহাওয়াকে তো আর আটকে রাখা যাবে না। নিতে হবে প্রয়োজনীয় যত্ন। আর এই যত্ন নেওয়া যায় বাড়িতে বসেই। সপ্তাহে এক দিন সময় বের করে ঘরোয়া প্যাক লাগিয়ে নিতে পারেন। রইল সে রকম কিছু প্যাকের কথা। হাতের যত্নে আধা কাপ আনারস, আধা কাপ পাকা পেঁপে এবং সমপরিমাণ মধু একসঙ্গে পেস্ট করে নিতে পারেন। এই মিশ্রণ হাতের কনুই ও বাহুতে ১৫ থেকে ২০ মিনিটের জন্য লাগিয়ে রাখুন। শুকিয়ে গেলে হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে হাতের ত্বক উজ্জ্বল ও মসৃণ হবে। জীবাণু সংক্রমণ থেকেও বাঁচাবে। সপ্তাহে অন্তত দুদিন প্যাকটি ব্যবহার করতে পারেন। এ ছাড়া ১ চামচ নারকেল তেলের সঙ্গে আধা চামচ লেবুর রস মিশিয়ে হাতের বিভিন্ন অংশে মালিশ করে নিন। এটা স্ক্রাবের কাজ করবে। যাঁদের তৈলাক্ত ত্বক, তাঁরা নারকেল তেলের পরিবর্তে অ্যালোভেরা জেলের সঙ্গে চিনি মিশিয়ে স্ক্রাব করতে পারেন। স্ক্রাবের পর ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন। এতে ত্বকের রোদে পোড়া ভাব দূর হয়ে যায়। প্যাকটি ...

Read More »

মেকআপ ও ঠোঁটের রঙ

eb932-dark-lips-beauty-trend

চোখের মেকআপ, মেকআপের বেইজ ইত্যাদির সঙ্গে মানিয়ে ঠোঁট রাঙাতে হয়। নইলে পুরো খাটনি যাবে বৃথা। কখনও লাল, কখনও গোলাপি আভায় ঠোঁট সাজাতে মেকআপের রংয়ের ব্যবহার নিয়ে জানা প্রয়োজন। সাজসজ্জা বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে মেকআপের সঙ্গে মিলিয়ে নির্দিষ্ট ঠোঁটের রংগুলো কখন ব্যবহার করলে ভালো হয় সেই বিষয়ে পরামর্শ দেওয়া হয়। লাল: ঠোঁটে লাল রং ব্যবহারের প্রাধান্য কখনও পুরান হওয়ার নয়। গাঢ় কালো আইলাইনারে টানা চোখ, ঘন করে লাগানো মাস্কারার সঙ্গে লাল লিপস্টিক দারুণ মানানসই। লাল লিপস্টিকের সঙ্গে চোখের সাজ এবং অন্যান্য মেকআপ যত হালকা হয় ততই ভালো। এতে ঠোঁট নজর কাড়বে বেশি। গোলাপি: হালকা গোলাপি বা বেবি পিঙ্ক রংটি ফর্সাদের সঙ্গে বেশি মানানসই। অন্যদিকে বাদামি গায়ের রংয়ের সঙ্গে মানিয়ে যায় গাঢ় গোলাপি। গোলাপি লিপস্টিক ব্যবহারের ক্ষেত্রে মেকআপের প্রতিটি ক্ষেত্রেই গোলাপি আভা থাকা ‍উচিত। চোখের সাজ, ব্লাশ এবং লিপস্টিক প্রতি ক্ষেত্রেই গোলাপি রংয়ের ভিন্ন ভিন্ন শেড ব্যবহার করা যেতে পারে। বেগুনি: দারুণ উজ্জ্বল একটি রং। তাই লালের মতো এই রং ব্যবহারের ক্ষেত্রেও মুখের ...

Read More »

চুলের যত্নে সহজ প্যাক

best-hair-packs-masks-available-in-market-for-damaged-hair

লম্বা, ঘন কালো চুল সব নারীর কাম্য। কিন্তু অনেকে নারীই অভিযোগ করে থাকেন তাদের চুল লম্বা হয় না। এই নগর জীবনে দূষণ, ধুলাবালি, অস্বাস্থ্যকর জীবনযাত্রার কারণে চুল পুষ্টিহীনতায় ভুগে থাকে। চুল রাতারাতি লম্বা হওয়া সম্ভব নয়। চুল লম্বা করার জন্য প্রয়োজন যত্নের, পুষ্টিকর খাদ্যের এবং স্বাস্থ্যকর জীবনযাত্রার। কিছু প্যাক আছে যা ব্যবহারে চুল হবে লম্বা, ঘন এবং মজবুত। আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক সেই প্যাকগুলোর কথা। ১। ডিমের সাদা অংশ ডিমের সাদা অংশ ভাল করে ফেটে নিন। এবার এটি চুলে ম্যাসাজ করে লাগান। ডিমের প্রোটিন চুলে পুষ্টি যুগিয়ে চুল মজবুত করে তুলে। এর সাথে চুল ঘন এবং লম্বা করে থাকে। ২। ডিম এবং দুধের প্যাক একটি ডিম, এক কাপ দুধ, একটি লেবুর রস এবং দুই টেবিল চামচ অলিভ অয়েল। প্রথমে ডিম থেকে সাদা অংশ এবং কুসুম আলাদা করে ফেলুন। তৈলাক্ত চুলের ডিমের সাদা অংশ এবং নরমাল চুলের জন্য সম্পূর্ণ ডিম ব্যবহার করুন। ডিম ভাল করে ফেটে নিন। এরসাথে দুধ, অলিভ ...

Read More »

ফেসপ্যাক ও ঘুম

Spa Facial Mask.Dayspa

ত্বকের যত্নে নানা রকম ফেসপ্যাক আমরা প্রতিনিয়ত ব্যবহার করে থাকি। ফেসপ্যাক সাধারণত গোসলের সময় অথবা তার আগে ব্যবহার করা হয়। তবে বিশেষজ্ঞদের মতে ফেসপ্যাক রাতে ব্যবহার করা ভাল।   রাতের কিছু ফেসপ্যাক নিচে দেওয়া হলঃ ১। আপেল এবং ক্রিমের ফেসপ্যাক একটি আপেল খোসা ছাড়িয়ে কুচি করে নিন। আপেলের কুচি কয়েক মিনিট পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। তারপর ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে পেস্ট করে নিন। একটি পাত্রে আধা কাপ ক্রিম এবং আপেলের পেস্ট মেশান। ভাল করে মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিন। এই প্যাকটি মুখ এবং ঘাড়ে ব্যবহার করুন। ১০-১৫ মিনিট পর শুকিয়ে গেলে কুসুম গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাকটি রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে ব্যবহার করুন। ত্বকের ময়লা, মৃত কোষ দূর করে নরম কোমল করে তোলে। ২। লেবু এবং দুধের সর খুব সহজে ঘরে থাকা উপাদান দিয়ে এই প্যাকটি তৈরি করা সম্ভব। ১ চা চামচ দুধের সর এবং ১/৪ চা চামচ লেবুর রস একসাথে মেশান। এই মিশ্রণটি ত্বকে ব্যবহার করুন ও পরে পানি ...

Read More »

ডার্ক সার্কালে মেকআপের যাদু

screen-shot-2013-07-15-at-jul-15-2013-11-30-44-am-www-kimgreenemakep-blogspot-com

মুখের সৌন্দর্যে অন্যতম হল চোখ। আর এই চোখের নিচে যখন কালি পড়ে তখন মুখের সৌন্দর্য কমে যায় অনেকখানি। শসার রস, আলুর রস ব্যবহার করার পরও অনেকের চোখের নিচে কালি থেকে যায়। চোখের নিচে কালি একদিনে দূর করার সম্ভব নয়। নিয়মিত ব্যবহারে এই কালি আস্তে আস্তে দূর হয়। চোখের এই কালি ঢাকার জন্য অনেকে মেকআপের সাহায্য নিয়ে থাকেন। তবে মেকআপটি ঠিকমত ত্বকে না বসলে দেখতে আরও খারাপ লাগে। মেকআপ কৌশলঃ ১। প্রথমে ত্বকে যেকোন ভাল মানের ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করে নিন। এরপর ত্বকে প্রাইমার লাগিয়ে নিন। প্রাইমারের লেয়ারটি যেন খুব বেশি মোটা না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখবেন। ২। এবার চোখের নিচে কনসিলার ব্যবহার করুন। কনসিলার চোখের নিচের কালি এবং ফোলাভাব ঢাকতে সাহায্য করবে। ৩। বিউটি ব্লেন্ডার দিয়ে ভাল করে কনসিলার ত্বকে ব্লেন্ড করে লাগিয়ে নিন। ৪। এবার ত্বকে ফাউন্ডেশন ব্যবহার করুন। আপনার ত্বকের রঙের সাথে ম্যাচিং ফাউন্ডেশন ব্যবহার করুন। ৫। এবার আরেক লেয়ার কনসিলার ত্বকে ব্যবহার করুন। এবং তা ভাল করে ব্লেন্ড ...

Read More »