Saturday , December 10 2016
সদ্য প্রাপ্ত
Home / Slider / রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে-তারেকের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি
প্রকাশঃ 30 Sep, 2016, Friday 8:07 AM || অনলাইন সংস্করণ
তারেক রহমান

রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে-তারেকের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি

ঢাকা:রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে রাজধানীর তেজগাঁও থানায় দায়ের করা মামলায় বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। পরোয়না প্রাপ্ত আরেক আসামি হলেন, একুশে (ইটিভি) টেলিভিশনের চাকরিচ্যুত সাংবাদিক মাহথির ফারুকী খান।
বৃহস্পতিবার ঢাকা মহানগর হাকিম সরাফুজ্জামান আনসারি মামলার অভিযোগপত্র আমলে নিয়ে এ পরোয়ানা জারি করেন। একই সঙ্গে আসামিদের গ্রেপ্তার করা গেলো কিনা এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আগামি ২ নভেম্বর দিন ধার্য করেন।
মামলার চার্জশিটভুক্ত অন্য দুই আসামি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের সাবেক চেয়ারম্যান আবদুস সালাম কারাগারে আছেন। একই টেলিভিশনের চাকরিচ্যুত সাংবাদিক কনক সারোয়ার এ মামলায় জামিনে আছেন।
চার্জশিটে বলা হয়, গত বছরের ৪ জানুয়ারি যুক্তরাজ্য বিএনপি আয়োজিত এক সভায় তারেক রহমান প্রায় ৫০ মিনিট ধরে বক্তব্য দেন। তাঁর এই দীর্ঘ বক্তব্য একুশে টেলিভিশন সরাসরি সম্প্রচার করে। এই বক্তব্যে বাংলাদেশের প্রধান বিচারপতিকে নিয়ে কটাক্ষকর বক্তব্য রাখেন তারেক রহমান। ২০০৯ সালে বিডিআর বিদ্রোহ নিয়েও তিনি বিভ্রান্তিকর বক্তব্য দেন।
তাঁর ওই বক্তব্যের মাধ্যমে দেশের স্বাধীন বিচার বিভাগ, দেশপ্রেমিক সেনাবাহিনী, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) এবং পুলিশ বাহিনীর মধ্যে অসন্তোষ ও বিদ্বেষ সৃষ্টির জন্য তিনি অপচেষ্টা চালিয়েছেন। যা বাংলাদেশের সার্বভৌমত্বের প্রতি হুমকিস্বরূ এবং রাষ্ট্রদ্রোহিতার অপরাধ।
তারেক রহমান ঢাকা শহরকে অন্য জেলা থেকে এবং ঢাকার এক এলাকাকে অন্য এলাকা থেকে বিচ্ছিন্ন করে দেওয়ার জন্য তার দলের নেতাকর্মীদের নির্দেশ দেন। ফলে বিএনপি জামায়াতসহ ২০ দলীয় জোটের সমর্থকরা গত ৫ জানুয়ারি (২০১৫ সালের) দেশের বিভিন্ন স্থানে ধ্বংসাত্মক কার্যক্রমের মাধ্যমে জানমালের ব্যাপক ক্ষতি করার উস্কানি পায়। অন্য আসামিরা তারেকের দেয়া ওই বক্তব্য সরাসরি তাদের পরিচালনা ও মালিকানাধীন  একুশে (ইটিভি) টেলিভিশনে সম্প্রচার করে রাষ্ট্রদ্রোাহিতার অপরাধ করেছেন।

Check Also

human-rights-770x470

আজ বিশ্ব মানবাধিকার দিবস

প্রজন্ম ডেস্ক: জাতিসংঘের নির্দেশনায় বিশ্বের সব দেশে প্রতি বছর ১০ ডিসেম্বর পালিত হয় বিশ্ব মানবাধিকার ...