Friday , December 9 2016
সদ্য প্রাপ্ত
Home / Slider / নবীগঞ্জে শিশুকে দিয়ে মরণনেশা ইয়াবা বিক্রি!
প্রকাশঃ 14 Oct, 2016, Friday 7:10 AM || অনলাইন সংস্করণ
eaba_projonmo

নবীগঞ্জে শিশুকে দিয়ে মরণনেশা ইয়াবা বিক্রি!

মিজানুর রহমান সুহেল নবীগঞ্জ থেকে : নবীগঞ্জের প্রান কেন্দ্র আউশকান্দি বাজার এলাকায় মাদকের ছোবলে যুবসমাজ ধ্বংশের পথে। আউশকান্দি এলাকায় অপরাধীরা আবারো বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। শিশু বাচ্ছাদের দিয়ে চালিয়ে যাচ্ছে তাদের এহেন র্কমকান্ড।

গতকাল সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় ২৫পিছ ইয়াবা টেবলেট সহ মন্নান নামের এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেন আউশকান্দি বাজার ব্যবসায়ী কমিউটির সভাপতি মুর্শেদ আহমদ ও ইউপি সদস্য খালেদ আহমেদ জজ। এসময় বাজার ব্যবসায়ীর সকল সদস্য বৃন্দ সহ বাজার এলাকার লোকজন উপস্থিত ছিলেন। ওই সময় উপস্থিত লোক জনের সামন থেকে হঠাৎ মাদক ব্যবসায়ী মন্নান দৌড় দিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা চালায়। সাথে সাথে তাকে আটক করে গণ ধোলাই দিয়ে বাজার ব্যবসায়ী সমিতির কাছে হস্থান্তর করা হয়।

খবর পেয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মহিবুর রহমান হারুন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। পরে র‌্যাব-৯ শ্রীমঙ্গল ক্যাম্পে খবর দিলে র‌্যাবের একদল সদস্য এসে তাকে আটক নিয়ে যায়।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ৩/৪দিন পুর্বে আউশকান্দি বাজারে শরিফ নামে এক শিশু বাচ্ছা ইয়াবা বিক্রিকালে ধরা পরে জনতার হাতে। আটক শিশু শরিফ লোকজনকে জানায়, মন্নান নামের ব্যক্তির দেওয়া ইয়াবা টেবলেট সে বিক্রি করে আসছে কয়েক দিন ধরে। এরই মধ্যে মন্নান নামের ওই লোক আটক কাসেমকে নিয়ে যাওয়ার জন্য ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ওই সব ইয়াবা তার বলে কাসেম কে নিয়ে চলে যায়। এভাবে মাদক বিক্রি কারীকে তার লোক বলে ছিনিয়ে নিয়ে যাওয়ায় উপস্থিত লোক জনের মধ্যে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।

পরে শিশুকে মন্নান তার ঘরে নিয়ে বিক্রির জন্য দেওয়া ২৫টি ইয়াবা টেবলেট ফিড়ত চায়। তার নিকট রাখা টেবলেট জনতা ছিনিয়ে নিয়ে গেছে জানালে, শুরু হয় শিশু শরিফের নিযার্তন। বেধরক মারপিঠ করলে তার চিৎকারে তার মা সুপালা বেগম উপস্থিত হয়ে কেন তার বাচ্ছাকে মারপিঠ করা হচ্ছে জানতে চাইলে ওই মহিলার উপরও চলে অমানুবিক নিযার্তন। মা-ছেলের চিৎকারে বাজার এলাকার লোকজন এসে তাদেরকে রক্ষা করেন। পরে খোয়া যাওয়া ২৫টি ইয়াবা টেবলেটের মূল্য ২৫শত টাকা দিয়ে ছেলে কাসেমকে নিয়ে যান।
ওই মাদক ব্যবসায়ী মন্নান মিয়ার বাড়ি দীঘলবাক ইউনিয়নের দাউদপুর গ্রামে। তার বিরোদ্ধে একাধীক অপরাধ মুলক কর্ম কান্ডের অভিযোগ রয়েছে। এমনকি কয়েকবার র‌্যাব-পুলিশের হাতে ধরা পড়েছে সে। দিন দিন আউশকান্দি এলাকায় ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পরেছে মাদক।

আর এই মাদকের হাত থেকে রক্ষা পাচ্ছেনা যুবসমাজ, স্কুল-কলেজ গামী শিক্ষার্থী। মাদকাশক্তির ফলে যুবসমাজ আজ লক্ষ্যহীন। যুব সমাজের বর্তমান যেমন বিশৃঙখলা পূর্ণ, ভবিষ্যৎও তেমনি আঁধারে ঢাকা। এব্যাপারে মাদক বিক্রিকারী শরিফের মা সুপালা বেগমের সাথে আলাপ কালে তিনি জানান, তার ছেলে শরিফকে দিয়ে দাউদপুরের মন্নান মিয়া কয়েক দিন ধরে কি ধরনের বড়ি বিক্রি করিয়ে আসছে।

তিনি আরো বলেন, তার ছেলেকে দিয়ে এসব কি বিক্রি করা হচ্ছে জানতে চাইলে মন্নান মিয়া বলে ওসব তুমি চিনবানা ! তিনি বলেন, ছেলেকে ওই সব বিক্রি না করতে বললে মন্নান বিভিন্ন ভাবে ভয় দেয়ায়। এব্যাপারে আউশকান্দি বাজারের এক ব্যবসায়ী নাম প্রকাশ না করার সর্তে জানান, শিশু বাচ্ছাকে দিয়ে মাদক বিক্রি করা হচ্ছে আবার হাতেনাতে ধরার পরে এভাবে ফিল্মি ষ্টাইলে আটককৃতকে ছিনিয়ে নিয়ে যাচ্ছে অপরাধী ! তিনি বলেন এরাজ্য এখন অপরাধীদের দখলে, আমরা এ অপরাধ জগৎ থেকে মুক্তি চাই।

Check Also

roka

আজ বেগম রোকেয়া দিবস

মো: শিমুল প্রজন্ম ডেস্ক রিপোর্টার: আজ ৯ ডিসেম্বর বেগম রোকেয়া দিবস। তিনি ১৮৮০ সালের ৯ ...