Saturday , December 10 2016
সদ্য প্রাপ্ত
Home / আইন-কানুন / দুদক এবার মামলা ছাড়াই গ্রেপ্তার করতে পারবে!
প্রকাশঃ 06 Oct, 2016, Thursday 9:05 PM || অনলাইন সংস্করণ
dudok

দুদক এবার মামলা ছাড়াই গ্রেপ্তার করতে পারবে!

অনুসন্ধান পর্যায়েই অভিযুক্ত ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করতে পারবে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। দুদক আইন ২০০৪–এর দুটি ধারার সংশোধনের ফলে সন্দেহভাজন যে কাউকেই গ্রেপ্তার করার ক্ষমতা পেয়েছে সংস্থাটি।

দুদক মনে করে, এ সংশোধনীর মাধ্যমে দুদকের সক্ষমতা বেড়েছে। দুদক সচিব আবু মো. মোস্তফা কামাল বলেন, অনুসন্ধান পর্যায়ে দুদক কর্মকর্তাদের ক্ষমতা বাড়ার কারণে অনুসন্ধান অনেক তথ্যবহুল হবে। আগে তল্লাশি ও আলামত বা নথি জব্দ করার ক্ষমতা না থাকার কারণে অনুসন্ধান প্রতিবেদন অনেকটা অসম্পূর্ণ হতো। এর ভিত্তিতে মামলা হতো। এখন তথ্যবহুল প্রতিবেদন ও নথিপত্রের সহায়তায় পাকাপোক্ত ভিত্তির ওপর মামলা করা সম্ভব হবে।
দুদকের মতো প্রতিষ্ঠানের জন্য এ ধরনের ক্ষমতা জরুরি বলে মনে করেন ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশাল বাংলাদেশের (টিআইবি) নির্বাহী পরিচালক ইফতেখারুজ্জামান। সংস্থাটির সক্ষমতা বাড়লেও এ আইনের অপব্যবহারের ঝুঁকির বিষয়টিও উড়িয়ে দেননি তিনি।
গত ২১ জুন সংশোধিত আইনের গেজেট প্রকাশিত হয়। ওই গেজেটে প্রকাশিত সংশোধনী অনুসারে দুদক আইন ২০০৪–এর ২০ ধারার তিনটি উপধারায় ‘তদন্তের’ জায়গায় ‘অনুসন্ধান ও তদন্ত’ প্রতিস্থাপিত হয়। একইভাবে ২৬ ধারার উপধারা ১–এ তদন্তের পরিবর্তে অনুসন্ধান ও তদন্ত শব্দ দুটি প্রতিস্থাপিত হয়।
দুদক আইনে মামলার আগের প্রক্রিয়াকে বলা হয় অনুসন্ধান। আর মামলার পরের কার্যক্রমকে বলা হয় তদন্ত। নতুন এ আইনের ক্ষমতাবলে অনুসন্ধান ও তদন্ত—দুই পর্যায়ে দুদকের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার ক্ষমতা ভোগ করবেন।
আইন সংশোধনের আগে কেবল মামলার পরেই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার ক্ষমতা ছিল দুদকের তদন্তকারী কর্মকর্তার। সে ক্ষমতাবলে তদন্ত কর্মকর্তারা মামলা সংশ্লিষ্ট নথিপত্র জব্দ করা, তল্লাশি করা এবং গ্রেপ্তার করতে পারতেন। সংশোধনীর ফলে অনুসন্ধান পর্যায়েই একই ক্ষমতা ভোগ করবেন দুদক কর্মকর্তারা।
দুদক সচিব বলেন, এই ক্ষমতা নতুন নয়, ব্যুরোর আমলে দুদক কর্মকর্তাদের এ ক্ষমতা ছিল। এ ক্ষমতার অপব্যবহারের আশঙ্কা প্রসঙ্গে দুদক সচিব বলেন, যৌক্তিক কারণ ও সঠিক তথ্য ছাড়া কেউ গ্রেপ্তার করতে পারবেন না। কমিশন বিষয়টি কঠোরভাবে পর্যবেক্ষণ, পরিবীক্ষণ ও তদারক করবে। কেউ অপব্যবহার করেছেন, এমন প্রমাণ পেলে কঠোর ব্যবস্থা নেবে।

Check Also

rowshon

প্রধানমন্ত্রী আপনি ২০০ বছর বাঁচুন, আমাদের কে দেখবে আপনি না থাকলে?”- রওশন এরশাদ

অনলাইন ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী উড়োজাহাজে তিন বার নিরাপত্তা তল্লাসি চালানোর দাবি জানিয়ে শেখ হাসিনার দুইশ ...