Thursday , December 8 2016
Home / Slider / চতুর্থ শ্রেণির স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ, ধর্ষণের পর পাহাড়ের চূড়ায় মাটিচাপা
প্রকাশঃ 29 Sep, 2016, Thursday 9:42 PM || অনলাইন সংস্করণ
download

চতুর্থ শ্রেণির স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ, ধর্ষণের পর পাহাড়ের চূড়ায় মাটিচাপা

সারা বাংলা: সিলেটের কানাইঘাটে চতুর্থ শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর পাহাড়ের চূড়ায় মাটিচাপা দিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। বৃহস্পতিবার বিকেলে পাহাড়ের চূড়া থেকে ওই স্কুলছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত সুলতানা বেগম (১০) কানাইঘাটের এরালিগুল গ্রামের তেরাব আলীর মেয়ে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে তিন ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, ওই স্কুলছাত্রীকে গত রোববার স্কুল থেকে আর বাড়ি ফিরে আসেনি। পরে তাকে খোঁজাখুঁজি করে না পাওয়ায় গত বুধবার তার বাবা কানাইঘাট থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। বৃহস্পতিবার সকালে পুলিশ তার কয়েকজন সহপাঠীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এসময় তারা জানায় বড়খেওড় গ্রামের আবুল হোসেন নামে এক ব্যক্তি তাকে স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথি ধরে নিয়ে যায়।

পরে পুলিশ আবুল হোসেনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে। এক পর্যায়ে ওই স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যার কথা স্বীকার করে আবুল। এরপর তার মরদেহ বাড়ির পাশে পাহাড়ের চূড়ায় মাটিচাপা দেয়া হয়েছে বলেও জানায় আবুল।

কানাইঘাট থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হুমায়ূন কবির জানান, বিকেল ৫টার দিকে ওই পাহাড়ের চূড়ায় গিয়ে মাটিচাপা অবস্থায় স্কুলছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। মরদেহে ধর্ষণের আলামতও পাওয়া গেছে। রাতে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাপসাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনায় আবুল হোসেনসহ তিনজনকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

Check Also

red-card

ক্রিকেটেও লাল কার্ডের সুপারিশ

স্পোর্টস ডেস্ক: এবার ক্রিকেট মাঠেও অন্যায়কারী ক্রিকেটারের বিপক্ষে তাৎক্ষণিক শাস্তির ব্যবস্থা নিতে ক্ষমতা দেয়াহচ্ছে আম্পায়ারদের। ...